সংবাদদাতা:  ফেনীতে এবার চিকিৎসার টাকা যোগাড় করতে না পেরে চলন্ত ট্রেনের নিচে লাফিয়ে পড়ে একব্যক্তি আত্মহত্যা করেছে বলে রেলওয়ে ও নিহতের পারিবারিক সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে।
রেলওয়ে পুলিশ, প্রত্যক্ষদর্শী ও নিহতের পরিবার জানায়, পরশুরাম উপজেলার মির্জানগর ইউনিয়নের পূর্বসাহেব নগর গ্রামের মো. আলি হোসেন (৫০) সোমবার সকালে ফেনীতে ডাক্তার দেখানোর কথা বলে বাড়ি থেকে বের হন। এসময় ডাক্তার দেখানোর টাকা ব্যবস্থা করতে না পারায় সকাল আনুমানিক ১০টার সময় ফেনী ফেনী রেলগেইট এলাকায় চাঁদপুরগামী সাগরিকার নামের চলন্ত ট্রেনের নিচে আত্মহত্যার উদ্দেশ্যে লাফ দেন। এসময় চলন্ত ট্রেনের আঘাতে তার লাশটি ছিন্নভিন্ন হয়ে যায়।
খবর পেয়ে রেলওয়ে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেন। ফেনী রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এস আই) হারুন উর রশিদ জানান, নিহত আলি হোসেনের পকেটে একটি চিরকুট পাওয়া যায়। তিনি ডায়াবেটিস সহ বিভিন্ন রোগে ভুগছেন এবং তা চিকিৎসা করানোর মতো অর্থ তার কাছে নেই। তাই তার মৃত্যুর জন্য কেউ দায়ী নয় উল্লেখ করে তিনি এ পথ বেছে নেন।
খবর পেয়ে দুপুরে হাসপাতাল মর্গে বাবার লাশ সনাক্ত করেন নিহতের ছেলে মো.সেলিম। তার বাবা ডাক্তার দেখানোর কথা বলে বাড়ি থেকে এসেছিলেন জানিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তিনি অসুস্থ হলেও চিকিৎসা করানোর সামর্থ তাদের ছিল না বলে নিশ্চিত করেন।
Share Button