এসময় করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিকনির্দেশনার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা যে নির্দেশনা দিয়েছেন সেই মোতাবেক ফেনীর আওয়ামী লীগ নেতাকর্মী ও জনপ্রতিনিধিরা মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি বলেন, তার এ নির্দেশনা মোতাবেক পদক্ষেপ গ্রহণের কারণে এখনো বাংলাদেশে করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। সাংসদ বলেন, এতে আতংকিত হবার কিছু নেই। জেলায় করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে বিভিন্ন পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে নিজাম হাজারী বলেন, আপনারা জানেন ফেনী জেলায় ৪৩ টি ইউনিয়ন, ৬টি উপজেলা এবং ৫টি পৌরসভা এটি জেলা পরিষদ এবং ২০ জন জেলা পরিষদের সদস্য আছেন।

জেলার প্রতিটি ইউনিয়ন, পৌর মেয়র, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানসহ আওয়ামী লীগের নেতৃত্বে আমরা আরও এক মাস আগে হতে মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরিতে কাজ করে যাচ্ছি। তিনি আরো বলেন, আমরা প্রতিটি ঘরে গিয়ে মানুষকে সচেতন করার লক্ষ্যে বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করেছি। সেই মোতাবেক আমাদের আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা প্রত্যেকে আন্তরিকভাবে কাজ করছে। ইতোমধ্যে মানুষের সচেতনতা বৃদ্ধি জেলাব্যাপী ১ লাখ লিফলেট বিতরণ ও মাইকিং করা হয়েছে।

এসময় পৌরসভার গৃহীত পদক্ষেপের কথা উল্লেখ করে সাংসদ বলেন, ফেনী পৌরসভার মেয়র হাজী আলাউদ্দিনের নেতৃত্বে পৌর পরিষদ মানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। পৌরসভার প্রতিটি ওয়ার্ডে গরীব মানুষদের ঘরে ঘরে গিয়ে তারা খাবার দিয়ে আসছেন। এছাড়া স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ইতোমধ্যে ১০ হাজার হ্যান্ড স্যানিটাইজার তারা বিলি করেছেন। মাস্কগুলো আগামীকাল আসছে। সবাইকে তা সরবরাহ করবে। গুজব ছড়িয়ে মানুষকে আতংকিত না করতে সকলকে অনুরোধ জানান তিনি। তিনি বলেন, আপনারা গুজব না ছড়িয়ে যা সত্যিকার মানুষের কল্যাণে আসবে সে কাজগুলো করুন। এসময় আগামীকাল জুমআর নামায ঘরে পড়তে অসুস্থ ব্যক্তিদের প্রতি অনুরোধ জানান তিনি। সাংসদ নিজাম হাজারী বলেন, করোনা ভাইরাস নিয়ে আতংকের কিছু নই। আমরা সচেতন হলেই নিরাপদ থাকব। তিনি বলেন, আমারা চাই ফেনীসহ সারা বাংলাদেশের মানুষ নিরাপদে থাকবে। সফল রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনা যে দিক নির্দেশনা দিয়েছেন তা অনুসরণ করলে করোনা ভাইরাস আমাদের পক্ষে নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব।

Share Button