সংবাদদাতা: ফেনীর সোনাগাজীতে পারিবারিক কলহের জের ধরে সিরাজুল ইসলাম (৭০) নামে এক বৃদ্ধ পিতাকে লোহার পাইপ দিয়ে পিটিয়ে পা ভেঙ্গে দিয়েছে বখাটে ছেলে। উপজেলার নবাবপুর ইউনিয়নের মহদিয়া গ্রামের আশ্রাফ আলী ভূঞার নতুন বাড়িতে সোমবার সকালে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ, এলাকাবাসী ও আহত বৃদ্ধ জানান, সিরাজুল ইসলামের বখাটে ছেলে আমজাদ হোসেন টিটু পিতার অবাধ্য হয়ে প্রেম করে একই ইউনিয়নের মজুপুর গ্রামের এক তরুণীকে কয়েক মাস পূর্বে বিয়ে করেন। এই বিয়ে মেনে নেননি পিতা।
এই নিয়ে দীর্ঘদিন যাবত তাদের মধ্যে পারিবারিক কলহ চলছে। সকাল ৯টার দিকে মহদিয়া গ্রামের নিজ বাড়ির সামনে পূর্বপরিকল্পিতভাবে লোহার তৈরি একটি পাইপ দিয়ে পিতাকে এলো পাতাড়ি পিটাতে থাকে টিটু। পাইপের আঘাতে পিতার বাম পায়ের দুটি হাড় ভেঙ্গে যায়। বখাটে সন্তানের ভয়ে স্থানীয় কেউ তাকে হাসপাতালে ভর্তি করাতে এগিয়ে না এলে খবর পেয়ে স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন বন্দর মার্কেট যুব সংঘের সভাপতি মহিন উদ্দিন মহিন তাকে উদ্ধার করে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে।
পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফেনী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঘটনার পর থেকে হামলাকারী অবাধ্য সন্তান টিটু আত্মগোপনে রয়েছে। সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. উৎপল দাস বলেন, বৃদ্ধের বাম পায়ের দুটি হাড় ভেঙ্গে গেছে। সোনাগাজী মডেল থানার ওসি সাজেদুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বখাটে ছেলে আমাজাদ হোসেন টিটুকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।
Share Button