জনস্বার্থে ভুক্তভোগির ফেসবুক ওয়াল থেকে হুবহু কপিকৃত:  ফেনীর কসাই নামক একজন ডাক্তারের কর্মকান্ড…..!!!!
গত ১৬.০৯.২০২০ বুধবার আমার একমাএ ছেলে বয়স ২৭ মাস। খেলার সময় ১ টা লোহার পেরাক খেয়ে পেলে তাৎক্ষণিক আমি ফেনী সাইকা হেলথ কেয়ার সেন্টারে নিয়ে যাই, তারা এক্সরে করে সাথে সাথে রেফার করেন ফেনী কনসেপ্ট হাসপাতালের ডা. মোঃ খলিলুর রহমান অপুর কাছে, তিনি এক্সরে রিপোর্ট দেখে বলেন বাচ্চার অপারেশন করতে হবে এবং ক্যালকুলেটরে হিসাব করে বলেন খরচ হবে প্রায় ১,৭০,০০০/- টাকা…!! আপনি বললে আমরা কাগজ পএ রেডি করে অপারেশানের কাজ শুরু করতে পারি। এবং বলেন বাচ্চা বাচতেও পারে মারাও যেতে পারে….!!!
আমি নিম্নবিত্ত্ব পরিবারের একজন বাবা হয়ে ডাক্তারের এই কথা শুনে আমি নিজেই অজ্ঞান হওয়ার অবস্থা…!! তারপর ডাঃআমার অবস্থা দেখে কিছু ঔষধ দিয়ে বলেন আমাদের এখানে অপারেশান করালেও করাতে পারেন অথবা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজেও করাতে পারেন….!!! আমি চলে আসলাম এবং সাথে সাথে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে চলে গেলাম। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজে গিয়ে ২০ টাকা দিয়ে টিকেট কেটে ডাক্তারের কাছে গেলে তিনি সব কিছু দেখে বলেন ভয়ের কিছু নেই….!!!
আমি কিছু ঔষধ দিচ্ছি ২ দিন খাওয়ানোর পর আশা করি পেরাক পায়খানার সাথে বের হয়ে যাবে, বের না হলে আবার আমাকে ২ দিন পর দেখাবেন আমি একটু স্বস্তি পেলাম। এবং চট্টগ্রাম মেডিকেলের ডাক্তারের দেয়া ঔষধ কিনে নিলাম মাএ ১২০/- টাকা দিয়ে। বাড়িতে এসে ১ দিন বাচ্চাকে ঐ ঔষধ খাওয়ানোর পর ২য় দিন পায়খানার সাথে পেরাক বের হয়ে যায়…!! আলহামদুলিল্লাহ।
এই যদি হয় আমাদের ফেনীর বড় বড় নামধরী কসাই ডাক্তারদের অবস্থা আমরা কোথায় যাবো…?? কার কাছে বিচার চাইবো…?? এই সব কসাই ডাক্তারদের..।ফেনীবাসী সবাই সাবধান থাকবেন এই সব কসাই ডাক্তারদের থেকে।
বিদ্রঃ বের হওয়া পেরাকের ছবিও দেওয়া হল।
কপিঃ ( MD Milon)
Share Button