নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
স্বর্ণ ব্যবসায়ীর দায়েরকৃত ডাকাতি মামলায় ফেনী ডিবি’র ওসিসহ ৬ কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে।
বুধবার (১১ আগস্ট) বিকালে এক আদেশে তাদের বরখাস্ত করা হয়। পুলিশ সুপার (এসপি) খোন্দকার নুরুন্নবী বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
বহিস্কৃতরা হলেন, ফেনী ডিবির ওসি সাইফুল ইসলাম, উপপরিদর্শক (এসআই) মোতাহের হোসেন, মিজানুর রহমান ও নুরুল হক এবং সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) অভিজিত বড়ুয়া ও মাসুদ রানা।
এদিকে বেলা ৩ টার দিকে অাসামীদের ফেনীর আদালতে হাজির করা হয়। এসময় জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুল্লাহ খানের কাছে আসামীদের ৫ দিনের রিমান্ড দাবী করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। অপরদিকে আসামীদের পক্ষে জামিন আবেদন করেন তাদের আইনজীবীরা। আদালত শুনানি শেষে সাইফুল ইসলামের ৪ দিন ও বাকি ৫ জনের ৩ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন।
এসপি খোন্দকার নুরুন্নবী জানান, রোববার বিকালে ২০ টি স্বর্ণের বার নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকায় যাচ্ছিলেন স্বর্ণ ব্যবসায়ী গোপাল কান্তি দাস। ফেনীর ফতেহপুর রেলক্রসিং এলাকায় পৌঁছালে ডিবির ওই সদস্যরা তার গাড়িকে সিগনাল দেয়। একপর্যায়ে তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে ২০টি স্বর্ণের বার ছিনিয়ে নেয়।
এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নিরুপায় হয়ে ফেনীর এসপির কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। তদন্ত করে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় প্রথমে জেলা পুলিশ চারজনকে আটক করে। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে পরে আরো দু’জনকে আটক করা হয়।
এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতেই গোপাল ডিবির ৬ কর্মকর্তাকে আসামী করে ফেনী মডেল থানায় ডাকাতি মামলা দায়ের করেন। পরে আসামীদের গ্রেপ্তার দেখানো হয়।
এসপি আরো জানান, পুলিশ গ্রেপ্তারকৃত আসামিদের কাছ থেকে ১৫টি স্বর্ণের বার উদ্ধার করেছে। এগুলোর বৈধতা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। বাকি ৫টি স্বর্ণের বার কোথায় তা আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে জানা যাবে।

Share Button